ছবি

ইবিতে নবীন শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম অনু্ষ্ঠিত

1210

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তিকৃত নবীন শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হয়েছে।অাজ সোমবার (৩রা ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তনে এ নবীন বরণের আয়োজন করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।অাইন ও ভূমি ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রভাষক শাহিদা আক্তার ও বনানী আফরিনের যৌথ সঞ্চালনায় ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. সাইদুর রহমানের সভাপতিত্বে নবীন বরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো : হারুন -উর- রশিদ আসকারী,বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. সেলিম তোহা, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আব্দুল লতিফ উপস্থিত ছিলেন।

নীবন বরণ অনুষ্ঠানে মুখ্য আলোচক হিসাবে উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের বাংলাদেশের পাবলিক
বিশ্ববিদ্যালয়ের গুলোর মধ্যে একমাত্র ইমেরিটাস অধ্যাপক অরুণ কুমার বসাক।

মূখ্য অালোচক রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক এমেরিটাস ড. অরুণ কুমার বসাক বলেন, আমাদের শিক্ষক, অভিভাবকদের অসংযত জীবনযাত্রা, অপ্রতুল প্রশিক্ষণ পরিবেশ এবং দুর্বল শিক্ষক আমাদের ছেলেমেয়েদের দুর্বল করছে। তাই তাদের অনেকে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি হয়ে পড়াশুনা করেও ব্যর্থ হচ্ছে এবং বেদনা অনুভব করছে। তাদের একটাই প্রশ্ন কি করলে সফল হতে পারব? তাদেরকে আমি বলি, বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়াশোনার বিষয়বস্তুকে আত্মস্থ করতে হবে অর্থাৎ গরু যেমন খেয়েদেয়ে পরে বিশ্রামের সময় জাবর কাটে, তেমনি যা শুনলাম তা নিয়ে চিন্তা করতে হবে। সেটি আমার শিক্ষক ছোটবেলায় আমাকে শিখিয়েছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন উর রশিদ আসকারী বলেন পৃথিবীতে যে সব প্রতিষ্ঠানগুলো মানবসভ্যতাকে এগিয়ে নিয়ে গেছে তার মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয় অন্যতম। তোমাদের পদচারণায় বিশ্ববিদ্যালয় আজ প্রাণবন্ত হয়ে উঠেছে। তোমরা যে স্বপ্ন নিয়ে এসেছো তা অবশ্যই পূরণ হবে। আর তোমাদের সেই স্বপ্ন পূরণের সাক্ষী ও পাথেয় হবে এই বিশ্ববিদ্যালয়।

অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩৪ টি বিভাগের অংশগ্রহণে নবীন শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়। অালোচনা অনুষ্ঠানের পর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের অায়োজন করা হয়।