ঝালকাঠির নেছারাবাদ মাহফিলের আখেরি মোনাজাত শেষে বাড়ি ফেরার পথে ইটের ট্রলির ধাক্কায় নিহত-১ আহত-১

1226

সৈয়দ রুবেল, ঝালকাঠি জেলা প্রতিনিধিঃ ঝালকাঠির নেছারাবদ দরবার শরীফে বার্ষিক ইসালে সওয়াব ওয়াজ মাহফিলের আখেরী মোনাজাত শেষে বাড়ি ফেরার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় সিয়াম মীর (৩৫) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। দুর্ঘটনায় তার সাথে অপর আরোহী মোঃ জেবিন জমাদ্দার (২৫) গুরুত্বর আহত অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছে।২৫/০২/২০২০ইং তারিখ সোমবার সকাল ৯টার দিকে বরিশাল-খুলনা আঞ্চলিক মহাসড়কের ঝালকাঠির বাসন্ডা সেতুর পশ্চিম পাশে ইটবোঝাই অবৈধ ট্রলির মাটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দিলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত সিয়াম মীর পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া শহরের পুরাতন ষ্টিমারঘাট এলাকার পেশকার বাড়ির সোহরাব মীরের ছেলে। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শনিবার নেছারাবদ দরবার শরীফে বার্ষিক ওয়াজ মাহফিলের আসে।

সোমবার সকালে আখেরী মোনাজাত শেষে মোটরসাইকেল যোগে সিয়াম ও জেবিন ভান্ডারিয়া গ্রামের বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়।
পথে বাসন্ডা সেতুর পশ্চিম পাশে একটি ইটবোঝাই অবৈধ ট্রলি বেপরোয়া গতিতে এসে মোটরসাইকলে ধাক্কা দিলে দুই জনই আহত হয়। গুরুতর অবস্থায় তাদের বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পরে সিয়ামের মৃত্যু হয়।

ঝালকাঠি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খলিলুর রহমান বলেন, ঘটনার পরপরই আহত দুইজনকে বরিশাল নিয়ে যাওয়া হয়। তাদের মধ্যে একজন মারা গেছে। লাশ ময়না তদন্তের পরে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

উল্লেখ্য, ঝালকাঠি জেলা জুড়ে ট্রাফিক পুলিশের দায়িত্বহীনতা ও অসদাচরনের সুযোগে স্থানীয় পর্যায়ে তৈরী করা এসব অবৈধ ট্রলার টেম্পু ও মালবাহী টেম্পু সড়ক-মহাসড়ক এমন কি পৌরশহরের রাস্তা দবড়ে বেড়াচ্ছে।

এসব অবৈধ পরিবহনগুলো অপ্রাপ্ত বয়স্ক, আনাড়ি ও মাদকসেবী তরুন-যুবক চালক হিসাবে বেপরোয়া গতিতে চলাচল করে প্রায়শই জানমালের ক্ষতি সাধন করছে।

অথচ কোন ঘটনায়ই পুলিশ বা ট্রাফিক বিভাগ আইনগত বা কঠোর ভূমিকা না নেয়ায় এদের দ্বারা দূর্ঘটনার সংখ্যা বেড়েই চলছে। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের এহেন ভূমিকার কারনে সাধারন জনমনে চাপ ক্ষোভ বিরাজ করছে।