অতিঅল্প সময়ে এবং কম খরচে ব্যবসায়ীগণ কোম্পানি রেজিষ্ট্রেশন সেবা পাচ্ছেন-বাণিজ্যমন্ত্রী

মো. আব্দুল লতিফ বকসী,সিনিয়র তথ্য অফিসার: বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, এমপি বলেছেন, প্রতিযোগিতামূলক বিশবাণিজ্যে এগিয়ে যাবার জন্য ব্যবসায় সহজিকরণ এর বিকল্প নেই।

বাংলাদেশ সরকার ব্যবসা-বাণিজ্যের জন্য কোম্পানি রেজিষ্ট্রেশন ক্ষেত্রে সময়, খরচ কমাতে এবং আনুষ্ঠানিকতা সহজ করতে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। এর স্বীকৃতি স্বরুপ যৌথ মুলধনী কোম্পানি ও ফার্ম সমুহের পরিদপ্তরকে (আরজেএসসি) প্রধানমন্ত্রী ২০২১ সালের জনপ্রশাসন পদক প্রদান করেছেন। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে কোম্পানি রেজিষ্ট্রেশনের ক্ষেত্রে অটোমেশন চালু করা হয়েছে এবং অনেক সংস্কার করা হয়েছে। নির্দিষ্ট আইনের আওতায় আরজেএসসি কাজ করে থাকে।

এখন ডিজিটাল পদ্ধতিতে অতিঅল্প সময়ে এবং কম খরচে ব্যবসায়ীগণ কোম্পানি রেজিষ্ট্রেশন সেবা পাচ্ছেন। আগামীতে এ সুবিধা আরও বাড়বে। ইজ অফ ডুয়িং বিজনেস এ বাংলাদেশের অবস্থার অনেক উন্নতি হয়েছে, আরও হবে। এজন্য সংশ্লিষ্ট সকলের আন্তরিক সহযোগিতা প্রয়োজন। অভ্যন্তরিন ও আন্তর্জাতিক বাণিজ্য পরিচালনার আনুষ্ঠানিকতা অনেক সহজ হয়েছে।

বাণিজ্যমন্ত্রী আজ (০৮ আগষ্ট) ঢাকায় নিজ অফিস থেকে ভার্চুয়ালি বিজনেস ইনেসিয়েটিভ লিডিং ডিপার্টমেন্ট(বিল্ড) এবং ইউএসএইড যৌথ ভাবে আয়োজিত “রিমুভিং টাইম, কষ্ট এন্ড প্রোসেস রিলেটেড বটেলনেকস ইন কোম্পানি রেজিষ্ট্রেশন ইন বাংলাদেশ” শীর্ষক ওয়েবিনারে বক্তব্য প্রদানের সময় এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, শুধু সময় ও খরচ কমানো নয়, আগামীতে প্রয়োজনীয় সংস্কারের মাধ্যমে ইজ অফ ডুয়িং বিজনেস এ আরও দৃশ্যমান উন্নতির জন্য সরকার কাজ করে যাচ্ছে। দেশের ব্যবসায়ী এবং বিনিয়োগকারীগণ এখন ডিজিটাল রেজিষ্ট্রেশন ব্যবস্থার সুবিধা ভোগ করছেন।

বিল্ড চেয়ারপারসন আবুল কাশেম খানের সঞ্চালনায় ওয়েবিনারে বিষয়ের উপর মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিল্ড এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফেরদৌস আরা বেগম। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বাণিজ্য সচিব তপন কান্তি ঘোষ, ফিড দি ফিউচার অফিস অফ ইকোনমিক গ্রোথ ইউএসএইড এর ভারপ্রাপ্ত ডেপুটি অফিস ডিরেকটর মিসেস রেবেকা মোনিকেয়ালা, ফিড দি ফিউচার বাংলাদেশ ইমপ্রুভিং ট্রেড এন্ড বিজনেস ইনাবলিং ইনভায়রনমেন্ট একটিভিটি এর ভারপ্রাপ্ত চিফ অফ পার্টি ইউএসএইড মার্ক শিমান।