ইবিতে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে বঙ্গবন্ধু পরিষদের মানববন্ধন অনুষ্ঠিত

আমিনুল ইসলাম, ইবি সংবাদদাঃ দেশের বিভিন্ন জেলায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের উপর হামলা, হত্যা, মন্দির ভাঙচুর এবং বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ তথা সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে শনিবার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু পরিষদের আয়োজনে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বঙ্গবন্ধু পরিষদ ইবি শাখার সভাপতি(ভারঃ) ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. মোহাঃ জাহাঙ্গীর হোসেন এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. শেখ আবদুস সালাম বলেন, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছিল দেশের মানুষের সমৃদ্ধ ঠিকানা দেবার জন্য, মানবতার পতাকা তুলে ধরবার জন্য। আর সেই পতাকাই আজ পাকিস্তানী প্রেত্মাতা যারা দেশের স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্বে, উন্নয়নে বিশ্বাস করে না তারা বার বার থাবা দিচ্ছে। এই অশুভ চক্র দেশের উন্নয়নকে বাধাগ্রস্থ করতে চাই।দেশের মধ্যে বিঙ্খৃলা সৃষ্টি করতে চাই।

তাই অসাম্প্রদায়িক ও সম্পৃতির বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠীগুলো পরিকল্পিতভাবে এই ঘটনাটি ঘটিয়েছে। তিনি এই অশুভ চক্রকে বাংলার মাটি থেকে সমূলে উৎপাটনের জন্য সরকার প্রধানের কাছে জোরালো দাবি জানান। তিনি আরো বলেন, জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বে দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে তখনই দেশী-বিদেশী ষড়যন্ত্রকারীরা আমাদের উপর আঘাত করছে। তাই আমাদেরকে জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করে এই অপশক্তিগুলোর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ মাহবুবুর রহমান বলেন, মুসলিম, হিন্দু, খৃষ্টান, বৌদ্ধসহ সকল ধর্মের লোকেরই প্রথম পরিচিতি আমরা বাঙালী। আর এই আঘাতটা আজ বাঙালী জাতি সত্বার উপর আঘাত। তিনি বলেন, সবাই যার যার ইচ্ছেমতো নিজ নিজ ধর্ম পালন করবে। সেখানে স্বাধীনতা বিরোধী কুচক্রী মহল ধর্মীয় উন্মাদনা সৃষ্টি করে দেশের মধ্যে বিঙ্খৃলা সৃষ্টি করবে তা কখনোই বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে হতে দেয়া হবে না। তিনি বার বার এই ধর্মীয় আঘাতের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলবার জন্য দলমত নির্বিশেষে সকলের প্রতি আহবান জানান।

অপর বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ আলমগীর হোসেন ভূঁইয়া বলেন, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ সম্পৃতি ও সাম্যের বাংলাদেশ। তাই সাম্প্রদায়িক গোষ্ঠগুলো এখানে সাম্প্রদায়িকতার বিষবাষ্প ছড়াতে চাই। তারা চাই এই দেশ হবে আফগান। এদের বিরুদ্ধে এখনই আমাদের প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। তিনি বলেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম। ইসলাম ধর্মে কোন ধরনের ধর্মীয় বাড়াবাড়িকারীদের জায়গা নেই।

শুরুতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ অনুষ্ঠানে টেলিকনফারেন্সে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি ডাঃ এস.এ মালেক, বঙ্গবন্ধু পরিষদ কুষ্টিয়া জেলা শাখার সভাপতি মতিউর রহমান লাল্টু, বক্তব্য রাখেন প্রফেসর ড. মোঃ কামাল উদ্দিন, প্রফেসর ড. অরবিন্দু সাহা, প্রফেসর ড. শাহজাহান মন্ডল, প্রফেসর ড. মামুনুর রহমান, প্রফেসর ড. আনোয়ার হোসেন, বঙ্গবন্ধু পরিষদ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারন সম্পাদক প্রফেসর ড. মাহবুবুল আরফিন।

কর্মকর্তা সমিতির সভাপতি সামছুল ইসলাম জোহা, সাধারন সম্পাদক ও আন্তঃ বিশ্ববিদ্যালয় অফিসার্স ফেডারেশনের মহাসচিব মীর মোর্শেদুর রহমান প্রমুখ।