ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈলে বাচোর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বিভিন্ন অনিয়ম

গীতি গমন চন্দ্র : ঠাকুরগাঁওয়ের রানীশংকৈলে ৫নং বাচোর ইউনিয়নের বাচোর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের ব্যাপক অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারিতা,বিদ্যালয়ে দেরীতে আসা ও স্কুল টাইম অবমাননার প্রামাণ্য চিত্র পাওয়া যায়।

গত ২৭/০৬/২০২২ ইং তারিখে সোমবার সকাল ৯ ঘটিকায় রানীশংকৈল উপজেলার বাচোর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখা যায় সকাল ৯:৩৫ মিনিটে স্কুলে আসেন ঐ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মহেশ চন্দ্র রায়,সকাল ৯ঃ৩৭ মিনিটে সহকারী শিক্ষক মোছাঃফরিদা ইয়াসমিন,সকাল ১০টায় সহকারী শিক্ষক মিজানুর,সকাল ১০টা সহকারী শিক্ষক ভরনী প্রসাদ রায় ও ১১ঃ৫০মিনিটে প্রধান শিক্ষকর বউ সহকারী শিক্ষক রঞ্জনা রানী বিদ্যালয়ে আসেন।সরকারি নীতি মালায় সকাল ৯টায় স্কুল খোলার নির্দেশ থাকলেও প্রধান শিক্ষক সহ সকল সহকারী শিক্ষক দেরীতে আসেন।প্রধান স্কুলে এসে ৯ঃ৪০ মিনিটে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন।বাচোর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা নিয়ম নীতি তোয়াক্কা না করে দেদারসে স্কুল ফাঁকি দিয়ে চলছে। বিদ্যালয়ে না এসে ও হাজিরা খাতায় সঠিক টাইমে স্বাক্ষর করছে।গত ২৬/৬/২০২২ইং তারিখে প্রধান শিক্ষকের বউ সহকারী শিক্ষক রঞ্জনা রানী স্কুলে আসেন নাই।ছুটি না নিয়ে স্কুল না আসে থাকলে ও কোন ব্যাবস্থা নেননি প্রধান শিক্ষক তার নিজ স্ত্রী রঞ্জনা রানীর বিরুদ্ধে।রঞ্জনা রানী দেরীতে স্কুলে আসলে ও নিজের বউ বলে প্রধান শিক্ষক তার ব্যবস্থা নিতে পারবেন না বলে সাংবাদিক কে জানায়।ঐ বিদ্যালয়ের সহকারী মোছাঃফরিদা ইয়াসমিন তার স্বামী মোঃফয়জ উদ্দিন পীরগঞ্জ উপজেলার এক হাইস্কুল শিক্ষক তিনি ও তার বিদ্যালয়ে সঠিক টাইমে স্কুল করেনা।

এ বিষয়ে রানীশংকৈল উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের সাথে কথা হলে তিনি সাংবাদিক কে জানান আমি তাদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্ত মূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করব।