তালতলীতে অভিমান করা মাকে ফিরিয়ে আনতে না পরায় সন্তানের আত্মহত্যা।

তালতলী(বরগুনা) প্রতিনিধিঃ বরগুনার তালতলীতে স্ত্রী ও মায়ের কথা কাটাকাটিকে মা তার বাবার বাড়ি চলেযায়, মাকে ফিরিয়ে আনতে না পেড়ে এক সন্তানের জনক বাবুল মৃধা(৩২) আত্মহত্যা করেছেন।

সোমবার দিবাগত রাতে, উপজেলার শারিকখালী ইউনিয়নের পশ্চিম বাদুর গাছা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানাগেছে, ২০১২ সালে পারিবারিক ভাবে একই ইউনিয়নের নলবুনিয়া এলাকার। মৃত্যু বাদল খাঁন এর কন্যা মনিরা বেগমের সাথে, পশ্চিম বাদুরগাছা গ্রামের নসু মৃধার পুত্র বাবুল মৃধার সাথে বিবাহ হয়। বিয়ের পর থেকেই পুত্র বধুর সাথে শাশুড়ীর বনিবনা হচ্ছিলোনা, গত এক সপ্তাহ ধরে ধরে বাবুলের মায়ের সাথে তার স্ত্রীর সাথে কথার কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে পুত্র বধু ও সন্তানের উপর রাগ করে মা পিয়ারা বেগম তার বাবার বাড়ি চলে যান।

মাকে ফিরিয়ে নিয়ে আসার জন্য সোমবার সকালে, বাবুল পাশের গ্রাম কচুপাত্রা তার নানার বাড়িতে গিয়ে, মাকে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে অভিমান করে চলে আসে।

এরপর থেকেই পরিবারের সদস্যরা সারাদিন বাবুলকে খোজাঁখুজিঁ করে। বাবুলের স্ত্রী সোমবার দিবাগত রাতে বসতঘরের পশ্চিম পাশে রেইনট্রি গাছের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় বাবুলের মৃত্যু দেহ দেখতে পেয়ে ডাক চিৎকার করেন। এবং স্থানীয় লোকজন থানায় খবর দেয়।

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান মিয়া বলেন, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য বরগুনা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। তবে পারিবারিক কলহের জেরে এ আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা হচ্ছে।