ধামরাইয়ে মলম পার্টির চক্রের ৩ নারী সদস্য আটক।

মোঃ সম্রাট আলাউদ্দিন ,ধামরাই( ঢাকা) প্রতিনিধিঃ ঢাকার ধামরাই পৌরসভার উত্তর পাতা দোয়েল ক্লাব সংলগ্ন রাস্তা থেকে মলম পার্টি ও ছিনতাইকারী চক্রের তিন মহিলা সদস্যকে আটক করেছে থানা পুলিশ।গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাদের আটক করা হয়।

জানা যায়, সুইটি বেগম নামে এক মহিলা যাত্রী ধামরাই বাজার যাওয়ার উদ্দেশ্যে ইসলামপুর থেকে সিএনজিতে উঠে। ঐ সিএনজিতে পূর্বেই আরো ৩ জন মহিলা যাত্রী ছিল।সিএনজি যোগে পৌরসভার উত্তর পাতা এলাকায় পৌছালে ভিকটিম সুইটি বেগম জোরে চিৎকার দেয়।

সেই চিৎকারের শব্দে স্থানীয়রা সিএনজি থামায় এবং সিএনজিতে থাকা ৩ মহিলাকে জনতা আটক করে। ঔই সময় সুইটি বেগমের চোখে মুখে মরিচের গুঁড়ো দেওয়ার কারণে তিনি চিৎকার দেন এবং স্থানীয় জনতা সন্দেহ করে গাড়ি থামায় এবং ৩ মহিলাকে আটক করে। তবে সিএনজি চালক পালিয়ে যায়। ভুক্তভোগী সুইটিকে চোখে মুখে পানি দিলে তার স্বাভাবিকতা ফিরে আসে এবং তার কাছ থেকে বিস্তারিত তথ্য জানা যায়।পরে স্থানীয়রা থানায় ফোন দিলে ধামরাই থানার কিলো টিম এসআই রশিদ এসে সিএনজিসহ মলম পার্টির ৩ নারী সদস্যকে থানা হেফাজতে নিয়ে আসে। আটককৃতরা হলো- মানিকগঞ্জ জেলার সাটুরিয়া থানার কামতা গ্রামের লিয়াকত আলীর দুই মেয়ে শিরিন ও সালমা। অপরজন, একই জায়গার আব্দুস সালামের মেয়ে সুমি আক্তার। তারা দির্ঘদিন ধরে এই পেশার সাথে জড়িত। ভিকটিম সুইটি বেগম জানান, ইসলামপুর থেকে ধামরাই উদ্দেশ্যে সিএনজিতে উঠলে সিএনজিতে থাকা ৩ মহিলা আমার চোখে মুখে মরিচের গুঁড়ো দেওয়ার কারণে আমি চিৎকার করি।তখন দোয়েল ক্লাবের সামনে স্থানীয় জনতা আমাকে উদ্ধার করে।

এ বিষয়ে পুলিশ উপ- পরিদর্শক রশিদ উদ্দিন বলেন,মলম পার্টির ৩ নারী সদস্যকে আটক করা হয়েছে। তারা সুইটি নামে আরেক নারীকে অপহরণের চেষ্টা করছিল।

তাদের নামে একটি অপহরণ মামলা হয়েছে। আজ বুধবার তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।