প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের হাতে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার তুলে দিলেন রাসিক মেয়র লিটন ।

কেউ বাক প্রতিবন্ধী, কেউ দৃষ্টি, আবার কেউ শ্রবণ প্রতিবন্ধী । স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় নিজেদের মধ্যে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখে হয়েছেন বিজয়ী।

এসব বিজয়ী প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের হাতে পুরস্কার তুলে দিলেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন। মেয়রের হাত থেকে পুরস্কার পেয়ে আনন্দিত এসব শিক্ষার্থীরা।

আজ সোমবার বিকেলে নগরীর ষষ্ঠীতলা এলাকাস্থ প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের স্কুল পিএইচটি সেন্টারে এ পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন মেয়র।

অনুষ্ঠানে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, বতর্মান সরকারের সক্ষমতা অনেক বেড়েছে। তাই এসব শিক্ষার্থীদের জন্য নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে সরকার। তাদের বিভিন্নভাবে সাহায্য সহযোগিতা করা হচ্ছে।

এ সময় মেয়র আরো বলেন, রাজশাহী পিএইচটি সেন্টারের তেমন উন্নয়ন হয়নি। আগামীতে যাতে এখানে আরো শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়, তাদের যতœ নেয়া হয়, এবং প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামো উন্নয়ন করা যায়-এসব বিষয় নিয়ে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মকর্তাদের হাতে আলোচনা করবো।

রাজশাহী পিএইচটি আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ ও ১২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সরিফুল ইসলাম বাবু, বিভাগীয় সমাজসেবা কার্যালয়ের পরিচালক (অতিরিক্ত দায়িত্ব) হাসিনা মমতাজ, জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক রাশেদুল কবির, পিএইচটি ব্যবস্থপনা ও মনিটরিং কমিটির সদস্য শিরিন সুফিয়া খানম, দৃষ্টি প্রতিবন্ধী স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুল লতিব বাদল, সমাজসেবা অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ড. আব্দুল্লা আল ফিরোজ প্রমুখ।

অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামাল হোসেন, ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল মোমিন, ১৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আনোয়ার হোসেন, ১৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শহিদুল ইসলাম, ১৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌহিদুল হক সমুন ও ২০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রবিউল ইসলাম প্রমুখ।