বেনাপোলে ঠিকাদারের অবহেলায় মোটর সাইকেল দূর্ঘটনায় নিহত-১

যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের বেনাপোল ফায়ার সার্ভিসের সামনে মোটরসাইকেল দূর্ঘটনায় মোস্তফা মাহমুদ (সুমন) (৪৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার সময় বেনাপোল থেকে বাড়ি ফেরার পথে এ দূর্ঘটনা ঘটে। নিহত সুমন শার্শা উপজেলার উত্তর বুরুজ বাগান গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক এর ছেলে।

জানা যায়, রাত সাড়ে ৯টা সময় আকর্ষিক ঝড় ও শীলা বৃষ্টির মধ্যে সুমন বেনাপোল থেকে মোটর সাইকেল যোগে দ্রত বাড়ি ফেরার পথে ফায়ার সার্ভিসের সামনে রাস্তায় নির্মানাধীন কালভার্টের পাশে আটকে থাকা বাঁশের সাথে ধাক্কা লাগে। এ সময় বাঁশের একটি মুখ সুমনের বুকের এক পাশ দিয়ে ঢুকে যায় এবং গুরুতর আহত হয়ে পড়ে থাকে। পরে রাস্তায় চলাচল কারী লোকের মাধ্যমে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উদ্ধার করে শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত সাধারন জনগন অভিযোগ করে বলেন এখানে বড় গর্ত করা হয়েছে অথচ যানবাহন অথবা অন্যান্য বাহন যাতায়াত করার সময়সর্তকতা করার জন্য এখানে কোন লাল কাপড় বা গর্ত স্থানটি বাঁশ দিয়ে ঘেরা দেয়া ছিল না, এজন্য অকালে একটা মানুষের জীবন চলে গেলো, এর জন্য দায়ী সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও ঠিকাদার সহ তার প্রতিষ্ঠান।এদের কে আইনের মাধ্যমে বিচারের আওতায় নিয়ে আসলে ভবিষ্যতে এরকম ভাবে অকালে কোন মায়ের কোল খালি হবে না।

শার্শা উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা: নাজমুন নাহার রানী জানান, দূর্ঘটনায় আহত সুমন নামে একজনকে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা হাসপাতালে নিয়ে আসলে প্রাথমিক ভাবে পরিক্ষা করে দেখা যায় হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে।