মাগুরার শ্রীপুরে দুই গরু চোরকে গণধোলাই

আশরাফ হোসেন পল্টু,মাগুরা প্রতিনিধি ঃ গতকাল শনিবার গভীর রাতে মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার চৌগাছী গ্রামের দুই গরু চোরকে ধরে গণধোলাই দিয়েছে স্থানীয় লোকজন। গণধোলাইয়ের স্বীকার শহিদুল কসাই (৪০) ও সামছু কসাই (৫০) কে আশংকাজনক অবস্থায় পুলিশ প্রহরায় শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এলাকাবাসীর অভিযোগে জানা যায়, উপজেলার চৌগাছি হাফিজার বিশ্বাসের ছেলে শহিদুল কসাই (৪০) ও একই গ্রামের খোরশেদ শেখের ছেলে সামছু কসাই (৫০) এলাকায় মাংশ ব্যবসার পাশিপাশি দীর্ঘদিন ধরে গরু চুরি কারবারির সাথে জড়িত রয়েছে ।

গত শনিবার রাত অনুমান তিনটার দিকে চরচৌগাছী গ্রামের কামরুলের বাড়িতে গরু চুরির উদ্দেশ্যে গোয়ালঘরে প্রবেশ করে। বিষয়টি কামরুল টের পেয়ে গরু চোর ,গরু চোর বলে চিৎকার দেয়। তার চিৎকার শুনে চোরেরা দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে। তখন গ্রামবাসী দ্রæত ছুটে এসে চোরদের ধরে চরমভাবে ধণধোলাই দেয় । সংবাদ পেয়ে ওইসময়ই শ্রীপুর থানার এস,আই জুলিয়াস এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে চোর শহিদুল ও সামছুকে বিক্ষুব্ধ গ্রামবাসীর কাছ উদ্ধার করে আশংকাজনক অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

এদিকে গ্রামবাসীর মধ্যে অনেকেই অভিযোগ করেন,চৌগাছী গ্রামের ইউপি সদস্য নওশের আলী ও জুয়াড়ি মঞ্জু শেখ চোরদের বাঁচানোর জন্য তাদের সাথে আতাত করে এ ঘটনাকে ধামাচাপা দিতে বিভিন্ন মহলে তদবির করছে বলেও অভিযোগ রয়েছে।

দারিয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাকির হোসেন কানন জানান, উপজেলা মাসিক আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় গরু চুরির বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন ধরনের সিদ্ধান্ত মোতাবেক রাতের বেলা গরুবাহী গাড়ি চলাচলে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। তারপর গরু চুরি প্রতিহত করতে বিভিন্ন গ্রামে গ্রামে গ্রামবাসীদের মাধ্যমে পাহাড়াও জোরদার করা হয়েছে। সম্প্রতি এলাকার বিভিন্ন গ্রাম থেকে বেশকিছু গরু চুরি হয়েছে। গত সপ্তাহেও চরচৌগাছী গ্রামের কামরুলের গোয়ালঘর থেকে ২টি মূল্যবান গরু চুরি যায়। ঠিক তেমনি শনিবার রাতেও চোরেরা গরু চুরির উদ্দেশ্যে কামরুলের বাড়িতে হানা দিয়েছিল। বাড়ির লোকজন টের পেয়ে যাওয়ায় চোরেরা গরু চুরি করতে না পারলে গণধোলাইয়ের স্বীকার হয়ে পুলিশি প্রহরায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ বিষয়ে শ্রীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মাহবুবুর রহমান জানান, শনিবার রাত অনুমান তিনটার দিকে ওই গ্রামে দুইজন লোককে মারধরের সংবাদ শুনে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছিল । তবে গরু চুরির বিষয়টি সঠিক কি-না ? এই মুহুর্তে সঠিক করে বলা সম্ভব নয় । তবে অভিযোগ পেলে বিষয়টি বিস্তারিত জানা যাবে । রবিবার সকাল পর্যন্ত কোন পক্ষই কোন অভিযোগ দেয়নি । তবে চোরদের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ পেলে অবশ্যই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।