মানিকগঞ্জের সিংগাইরে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্যবিবাহ বন্ধ, ২৫ হাজার টাকা অর্থদণ্ড (ভিডিও)

স্টাফ রিপোর্টার: মানিকগঞ্জ জেলার সিংগাইর উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিপন দেবনাথ এঁর হস্তক্ষেপে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেল সপ্তম শ্রেণীতে স্কুল পড়ুয়া অপ্রাপ্ত বয়স্ক (১২ বছর) বয়সী এক শিক্ষার্থী।

অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েকে বিবাহ দেওয়ার অপরাধে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইনে কনের বাবাকে ২৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড করেছে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী অফিসার দিপন দেবনাথ ।

বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) দুপুর ২টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ধল্লা ইউনিয়নের দক্ষিণ ধল্লা এলাকার ৯নং ওয়ার্ডে কনের বাবার বাড়িতে গিয়ে এবিবাবহ বন্ধ করার পরে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ২৫ হাজার টাকা অর্থদন্ড করা হয়।

পরে সিংগাইর উপজেলা মহিলা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা ও স্থানীয় মেম্বারের উপস্থিতিতে মেয়ের প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিবাহ দিবেন না মর্মে স্বীকারোক্তি নেওয়া হয় বলেও জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দিপন দেবনাথ ।

সিংগাইর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দিপন দেবনাথ বলেন, এই উপজেলায় বাল্যবিবাহ কোনোভাবেই হতে দেওয়া হবে না। তবে গোপনে কোনো বাল্যবিবাহের আয়োজন করা হলে সংশ্লিষ্ট পরিবারের অভিভাবক, বর, আয়োজক ও নিকাহ রেজিস্ট্রারকে আইনের আওতায় আনা হবে বলেও জানান তিনি।