মারধর ও লুটপাটের অভিযোগে যুব মহিলা লীগের সংবাদ সম্মেলন ।

সাভারে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঢাকা জেলা যুব মহিলা লীগের সদস্য সাবিনা আক্তার লাভলী ও আশুলিয়া থানা যুব মহিলা লীগের কর্মী শম্পার উপর হামলা, নির্যাতন এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভোগীরা।

শুক্রবার রাত ৮ টায় সাভার ও আশুলিয়া থানা যুব মহিলা লীগের যৌথ উদ্যোগে সাভার প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এ সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। হামলার ঘটনায় ভুক্তভোগী সাবিনা আক্তার লাভলী আশুলিয়া থানায় একটি সাধারন ডায়েরী (নং-১৫০৪) দায়ের করেছেন।

সংবাদ সম্মেলন সাভার থানা যুব মহীলা লীগের আহŸায়ক কণক চাপাঁ কনা লিখিত বক্তব্যে বলেন, আশুলিয়া থানা আওয়ামী যুব মহিলা লীগের নেত্রী সাবিনা আক্তার লাভলী আশুলিয়া থানা যুব মহিলা লীগের কমিটিতে প্রতিদ্বন্দিতা করার ঘোষনা দেয়ায় যুব মহিলা লীগের সাবেক নেত্রী মনিকা হাসানসহ একদল সশস্ত্র দুর্বৃত্ত গত ২১ ফেব্রæয়ারী দুপর ২ টার দিকে সাবিনা আক্তারের মালিকানাধীন আশুলিয়ার গাজিরচটে সোনিয়া মার্কেটের হাসান ভিলার নিচতলায় অবস্থিত শাহজাদী লেডিস বিউটি পার্লারে হামলা চালিয়ে ভাংচুর ও লুটপাট চালায়।

এসময় বাধাঁ দিতে গেলে বিউটি পার্লারের মালিক সাবিনা আক্তার লাভলী ও তার ভাতিজি তাসমীম জাহান সম্পাকে মারধর ও শ্লীলতাহানি করে এলাকা ছেড়ে চলে যাওয়ার হুমকি দেয়। এঘটনায় আশুলিয়া থানায় একটি সাধারন ডায়েরী করা হলে শুক্রবার সকালে আবারও মনিকা তার সশস্ত্র সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে লাভলীর বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করে।

ভুক্তভোগী সাবিনা আক্তার বলেন, আমার উপর হামলা, মারধর করে আমার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে লুটপাটের ঘটনায় আমি সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর নিকট এ ঘটনার সুষ্ঠ তদন্ত পুর্বক বিচারের দাবি জানাই।

সংবাদ সম্মেলনে সাভার ও আশুলিয়া থানা যুব মহিলা লীগের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।