রাজশাহীতে ক্ষমতার দাপটে পৌর রাস্তা দখল ও ইমারত নির্মানের অভিযোগ

সৌমেন মন্ডল, রাজশাহী ব্যুরোঃ রাজশাহীর বাঘায় ১৬ জনের জমি সহ পৌর রাস্তার উপর ক্ষমতার দাপটে ইমারত নির্মান ও রাস্তা দখলের অভিযোগ পাওয়া গেছে ।

জানাযায়, উপজেলার নারায়ণপুরের মৃত হরেন্দ্রনাথ সাহার ছেলে স্বপন কুমার সাহা ও বিশ্বজিত সাহা সরকারি রাস্তার উপর ক্ষমতার দাপটে এই ইমারত নির্মান ও রাস্তা দখল করছে। এতে এলাকার লোক জনের যাতায়াতের একমাত্র রাস্তা বন্ধ হয়ে যাবে। সাথে সাথে বাঘার কেন্দ্রিয় মন্দির এর জাইগা দখল হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন ১৬ জন জনোগন।

এই নিয়ে এলাকাবাসি জানাই, ১৬ অক্টোবর বাঘা পৌরসভার প্যানেল মেয়র শাহিনুর রহমান পিন্টুর কাছে তারা অভিযোগ দেই।প্যানেল মেয়র সরজমিনে গিয়ে ঘটনার বর্ননা শুনে আমিন এনে সীমানা নিদ্ধারন করতে বলে এবং বাদী এবং বিবাদীদের কাছে একটি লিখিত নোটিশ দেয়। সেখানে উল্লেখ আছে শারদীয় দুর্গা পুজা সফল ভাবে সমাপ্ত হবার পরে আগামী ৩১ শে অক্টোবর রোজ শনিবার সকল কাগজপত্র নিয়ে হাজির হতে সেই সাথে উপরোক্ত তারিখ পর্যন্ত ইমারত নির্মান ও রাস্তা নির্মাণের কাজ বন্ধ রাখতে ।

কিন্তু বিবাদীরা ১৬ অক্টোবর শুক্রবার দুপুরে সরকারি রাস্তার উপর ক্ষমতার দাপটে এই ইমারত নির্মানের কাজ আবার শুরু করে। এসময় এলাকাবাসী বাধা দিতে আসলে তারা হাসুয়া,লাঠী ও দেশিও অস্ত্র নিয়ে এসে চিত্রনায়িকা বিদ্যা সিনহা মিমের মা ছবি সাহা ও মিমের বরাত দিয়ে বলেন, আমাদের উপর মহলে অনেক লোক আছে কেউ কিছু করতে পারবি না।
স্বপন সাহার ছেলে শুভ্র পল্লব সাহা হাসুয়া হাতে নিয়ে বলে পাচির আজকে দিবো কে আসবি আয়।

পরে বাঘা থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে কাজ বন্ধ করতে বলে তখন স্বপন সাহা বলেন আমাদের আমাদের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ শাহিন রেজা অনুমতি দিয়েছে। লিখিত কাগজ দেখেতে চাইলে বললে তিনি মৌখিখ ভাবে বলেছেন ।

এবিষয়ে প্যানেল মেয়র পিন্টু বলেন আমি ওখান থেকে আশার পর চিত্র নায়কা মিম আমাকে ফোন করে বলেন কাকা ওখানে আপনি যাবেন না আমি প্রাচির দিব। এই উত্তরে পিন্টু বলেন আমি জনপ্রতিনিধি আমাকে অভিযোগ দিয়েছে আমি সবার কথা ভেবে সামনে হিন্দু ধর্মাঅবলম্বিদের সবচেয়ে বড় উৎসব দূর্গাপূজা তাই কয়েকদিন পর জমির সিমানা মেপে কাজ করার জন্য বলেছি।

এই বিষয়ে মুঠোফনে বিবাদী স্বপন সাহা বলেন আমি ৩১ বছর শিক্ষাকতা করেছি।সমাজের পলেছি বুঝিনা। এই বাড়ি আমি না আমার বাবার বাবা তৈরি করেছে।আমি সেই বাড়ির উপরে কাজ করছি।আর প্রাচির টা ভেঙ্গে একই জাইগাতে নতুন করে করছি।সামনে পূজা মিম আসবে ওর তো সিকুরিটির ব্যাপার আছে।ও নায়কা ওকে দেখার জন্য প্রতি বছর অনেক মানুষ বাড়িতে ভিড় করে।
তবে আজ আর কোন কাজ করিনি।কিন্তু ৩১ তারিখ পর্যন্ত আমার বাড়ির সদস্যদের নিরাপত্তা কে দিবে।

আমি না আমার ভাই এ রা আমার বাড়ির সামনে রাস্তা ঘিরে প্রাচির দিয়েছে ওটাকে ধামাচাপা দিতে এখন এই কাজ করছে।আপনি সরজমিনে এসে দেখতে পারেন।

এই বিষয়ে শুভ্রপল্লব সাহা বলেন এই অভিযোগ ভিত্তিহিন।আমাদের আছে মৌখিক ভাবে অনুমতি দিয়েছিল কিন্তু লিখিত নাই।শেষ পর্যন্ত কিন্তু কাজ বন্ধ আছে।