রাণীশংকৈলে বেতন-ভাতার দাবিতে শিক্ষক কর্মচারীদের অবস্থান ধর্মঘট

রানীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধিঃ ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল ডিগ্রী কলেজের শিক্ষক, কর্মচারীরা ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে বেতন ভাতার দাবিতে অবস্থান ধর্মঘট করেছে।

২০ মে (বুধবার) দুপুরে কলেজ প্রশাসনিক ভবনের সামনে ৩ মাসের বকেয় বেতন ভাতার দাবি জানিয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে অবস্থান ধর্মঘট করেছে শিক্ষক কর্মচারীরা।করোনা মোকাবেলায় লোকডাউনের মধ‍্যদিয়ে বেতন ভাতা ছাড়াই মানবেতর জীবন যাপন করছে বলে জানান তারা।

এসময় বক্তব‍্য রাখেন, শিক্ষক প্রতিনিধি সহকারি অধ‍্যাপক সফিকুল আলম, প্রভাষক শাহজাহান আলী , প্রভাষক তাহের হোসেন, প্রশান্ত বসাক, সুলতান, মোস্তাফিজুর, মিজানুর, আলমগীর প্রমুখ।

বক্তরা বলেন, আজকের মধ‍্যে শিক্ষক কর্মচারীদের ৩ মাসের বকেয়া বেতন ভাতা না দিলে, কলেজ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে কঠোর কর্মসূচী গ্রহণ করা হবে। এ সময় অবস্থান ধর্মঘট কর্মসূচিতে কলেজের প্রায় অর্ধশতাধিক শিক্ষক কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।

প্রভাষক তাহের হোসেন বলেন, “শিক্ষকরা বছরে মাত্র দুটি উৎসব ভাতা পাবেন, এটা দিতে এত টালবাহানা মেনে নেওয়া যায় না। অপরদিকে এই করোনার ভিতরেও তারা শিক্ষক নিয়োগ নিতেই আছেন। এটা কি করে সম্ভব”?

বক্তারা বলেন, করোনা মোকাবেলায় লোকডাউনের মধ‍্যদিয়ে বেতন ভাতা না পেয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে কলেজের শিক্ষক কর্মচারীরা এবং ভারপ্রাপ্ত অধ‍্যক্ষ ও উপাধ‍্যাক্ষ কলেজে নিয়োগ বানিজ‍্য অব‍্যাহত রেখেছে। অথচ এই সব শিক্ষকদের খোঁজখবর নিচ্ছেন না তারা।

এ প্রসঙ্গে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ তাজুল ইসলাম বলেন, “গতকাল অনার্সের শিক্ষকদের বেতন ভাতা দেওয়ার জন‍্য তাদের কলেজে ডাকা হয়েছিল। তারা বোনাস ছাড়া বেতন নিবেন না। এমপিও শিক্ষকদের ঈদ বোনাসের বিষয়টি গভর্নিং বডির সিদ্ধান্তক্রমে হবে। আমার একার পক্ষে কিছু করার নেই। কলেজে ফান্ড না থাকায় তাদের বোনাস দিতে পারছেনা কলেজ কর্তৃপক্ষ।

অপরদিকে এ করোনা পরিস্থিতিতে অনেক প্রতিষ্ঠান বেতন বিল দিতে পারছেন না। আমরা তো তাদের জন্য ব্যবস্থা করেছি। তারা না নিলে আমরা কি করব”?