সাভারের আশুলিয়ার রাজু আহমেদ নামের এক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে ,শ্রমিক নেতাকে তুলে নিয়ে আটকে রেখে মারধরের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টারঃ গতকাল শনিবার রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ব্যবসায়ী রাজু আহমেদের গোডাউন থেকে অপহৃত ওই শ্রমিক নেতাকে উদ্ধার করেন ।

এর আগে সকালে শ্রমিক নেতার স্ত্রী “সুলতানা পারভীন” বাদী হয়ে বিষয়টি জানিয়ে সাভার মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন। অপহৃত শ্রমিক নেতা মো. রতন হোসেন মোতালেব (৩১)। ঢাকার ধামরাই উপজেলার মাকুলিয়া গ্রামের বাসিন্দা। তিনি সাভার-আশুলিয়ার তৈরি পোশক শ্রমিকদের নিয়ে কাজ করতেন।

উদ্ধারের পর শ্রমিক নেতা রতন হোসেন (মোতালেব) বলেন, শুক্রবার রাত পৌনে ১০ টার দিকে মোঃ রতন হোসেন মোতালেবকে কলমা এলাকার নিজ ভাড়া বাসার সামনে থেকে ৪/৫ জন সন্ত্রসী সহ রাজু গ্রুপের চেয়ারম্যান রাজু আহমেদের দেহরক্ষী আব্বাস আমাকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে কথা বলার এক পর্যায়ে জোরপূর্বক রাজুর একটি সাদা রঙয়ের হায়েছ গাড়িতে করে আমাকে তুলে নিয়ে যায়। তারপর আমাকে রাজু আহমেদের একটি পাইপের গোডাউনে আটকে রেখে প্রথমে লোকজন দিয়ে মারধর করে এবং পরে রাজু নিজেও এসে আমাকে মারধর করে। রাজু আমাকে মেরে ফেলার জন্য তার লোকদের আদেশ দেয়।’

এর আগে রাজুর আরেক দেহরক্ষী জলিল আমাকে ফেইজবুকে রাজু আহমেদের ভুয়াআইডি খুলে অপপ্রচারের জন্য সন্দেহ পুবক বেসয়েক বার বাজে আচরণ করেন , এই জলিল প্রভাবশালী বিএনপি নেতাদের সাথে চলার কারনে এমন প্রভাব দেখান বলেও যানা যায় ।

এ বিষয়ে জানতে ব্যবসায়ী রাজু আহমেদের মুঠোফোনে কয়েকবার কল করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি। পরে হোয়াটসঅ্যাপে এ অভিযোগের সত্যতা জানতে চেয়ে একটি খুদে বার্তা পাঠানো হলে তিনি বলেন, ‘রতন এখন পুলিশ ক্যাম্পে আছে। গতকাল আমি ঢাকার বাইরে ছিলাম।’

সাভার থানার ওসি কাজী মাইনুল ইসলাম শ্রমিক নেতাকে উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘এ ঘটনায় সাভার থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে । এমন হাইব্রিড নেতা দুষ্কৃতিকারী অপহরণকারীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানাচ্ছেন এলাকাবাসীসহ ভুক্তভোগীর পরিবার ।