সাভারে গরুর বেপারীর ছেলে রহমত আলী এখন ভয়ংকর সন্ত্রাসী।

1505

ষ্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা সাভারে গরুর বেপারী আওয়ামী লীগ নেতার ছেলে মোঃ রহমত এখন ভয়ংকর সন্ত্রাসী বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।রহমত আলী উপজেলার ভাকুর্তা ইউনিয়নের মুগড়াকান্দা এলাকার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ শহিদুল্লাহ বেপারির ছেলে।

স্থানীয়রা বলেন, শহিদুল্লাহ বেপারী এক সময় গরুর দালাল ছিলেন। বিভিন্ন এলাকা থেকে চোরাই গরু কিনে এনে বিক্রয় করে বেপারী উপাদি পান তিনি। আর এখন বর্তমানে শহিদুল্লা বেপারী ভাকুর্তা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী সভাপতি।এলাকাবাসিরা বলেন, গরুর বেপারী শহিদুল্লা মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ইউনিয়ন আ,লীগের পদ বাগিয়ে নেন। এর পর থেকেই তিনি আ,লীগের নেতা কর্মীদের কে বাদ দিয়ে বিএনপির লোকজনদেরকে সাথে নিয়ে দলীয় কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। ফলে এলাকায় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক অবস্থা খুব দূর্বল রয়েছে।ওই ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ জাকির হোসেন বলেন, শহিদুল্লাহ বেপারী এলাকার প্রভাবশালী নেতা হওয়ার কারনে তার ছেলে রহমত আলী এলাকার মধ্যে এক সংঘবন্ধ ভাবে সন্ত্রাসী বাহিনী গড়ে তুলেছেন। বর্তমানে হয়ে উঠেছেন ভয়ংকর সন্ত্রাসী।

তিনি বলেন, কয়েকদিন আগে রহমত আলীসহ তার সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে চাদাবাজি করতে যায়। এসময় এলাকার লোকজন একসাথে জরো হয়ে সন্ত্রাসীদেরকে ধাওয়া করে ধরে গণধোলাই দেয়।
এসময় তিনি আরো বলেন, শহিদুল্লাহ বেপারীর ছেলে রহমত আলী গত দুই দিন আগে তার সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে ইসমাইলের বাড়িতে হামলা চালায়।

এসময় সন্ত্রাসীরা বাড়ি ঘর ভাংচুর করে লুটপাট করে নিয়ে যায়। এর পরপরই রহমত আলীর নেতৃত্বে সন্ত্রাসী বাহিনী ইউপি সদস্য মোঃ জাকির এর অফিসে অতর্কিত হামলা চালিয়ে অফিস ভাংচুর চালায়। এসময় সন্ত্রাসীরা অফিসের ড্রয়ারে থাকা নদগ ৯লক্ষ টাকাসহ মুল্যবান কাগজ পত্র লুটকওে নিয়ে যায়। এঘটনায় সাভার মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিলো।

ইউপি সদস্য মোঃ জাকির হোসেন বলেন, বাবার ক্ষমতার বলে ছেলে রহমত আলী এলাকার মধ্যে সন্ত্রাসীর রাজত্ব কায়েম করে চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী, ভূমিদস্যু ও জমজমাট মাদক ব্যবসা করে আসছে।

তাই এই মুহুর্তে তাকে আইনের আওতায় না আনলে যে কোনো মুহুর্তে বড় ধরনের কোনো ঘটনা ঘটতে পারে।