সিংগাইরে সন্ত্রাসী হামলায় আহত হলেন মহিলা মাদ্রাসার নারী সুপার

এফ এম ফজলু (মানিকগঞ্জ) সিংগাইরঃ মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলার সায়েস্তা ইউনিয়নের লক্ষীপুর তালতলা এলাকার মিসেস হাজেরা আক্তার নামের মহিলা মাদরাসার এক নারী সুপারকে তার নিজ বসত বাড়িতে অনাধিকার প্রবেশ করিয়া পিটিয়ে জখম করিয়াছে।

এ ঘটনায় ভিকটিমের বড় ভাই আবু সায়েম বাদী হয়ে থানায় এজাহার দায়ের করেছেন।

জানা গেছে, গত রবিবার (৯ মে) বিকেল সাড়ে ৩ টার দিকে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে গোবিন্দল মাদরাসা জায়নব বিনতে মুহাম্মদ(সাঃ) বালিকা মাদরাসা ও এতিমখানার সুপার মিসেস হাজেরা আক্তারকে মারপিট করে তারই সম্পদ লোভী ভাসুর মুছলেম উদ্দিন মুসা ও তার পরিবারের লোকজন

এ সময় মুসার ৩ ছেলে মিলন, আলমগীর ও হাবিবুরসহ আরো কয়েকজন বসত বাড়িতে ঢুকে ঘরবাড়ি ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। পরে স্থানীয় লোকজন আহত অবস্থায় নারী সুপারকে সিংগাইর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আহত হাজেরা ওই এলাকার ইস্রাফিলের স্ত্রী।

হাজেরার ভাই আবু সায়েম অভিযোগ করে বলেন, আমার ভগ্নিপতি ইস্রাফিল মানসিক ভারসাম্যহীন হওয়ায় তার ভাই মুসা আমার বোন হাজেরার পরিবারকে প্রতিনিয়ত বাড়ি থেকে উচ্ছেদের পায়তারা করছে। য়ে কারনে হামলা চালিয়ে মারপিট করেছে মুসার পরিবার।

এদিকে , সোমবার (১০ মে) বিকেলে মুসার বাড়িতে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে সিংগাইর থানার এস আই তারিকুল ইসলাম বলেন, মারপিটের ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেছে। আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে