সিঙ্গাপুরের পথে ওবায়দুল কাদের

ঙ্গাপুরের উদ্দেশে রওয়ানা হয়েছেন গুরুতর অসুস্থ ওবায়দুল কাদের। সোমবার (৪ মার্চ) বিকেল সোয়া তিনটার দিকে তাকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতাল থেকে তাকে বের করা হয়।

এখন তাকে নেয়া যাওয়া হচ্ছে হজরত শাহজাহাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে। সেখান থেকে এয়ার এ্যাম্বুলেন্সে নিয়ে যাওয়া হবে সিঙ্গাপুরে।

দেশটির মাউন্ট এলিজাবেথ হসপিটালে তাকে চিকিৎসা দেয়া হবে তাকে।

বিএসএমএমইউ উপাচার্য কনক কান্তি বড়ুয়া একথা জানান, ওবায়দুল কাদেরের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল হলেও এখনো শঙ্কামুক্ত নয়।

এর আগে দুপুরের দিকে একটি চার্টার্ড বিমানে করে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছনোর সঙ্গে সঙ্গে তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চলে আসেন। দেবী শেঠির সঙ্গে ছিলেন বিএসএমএমইউয়ের প্রিভেনটিভ অ্যান্ড রিহ্যাবিলিটেশন কার্ডিওলজি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. হারিসুল হক, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক সৈয়দ মোজাফফর আহমেদ।

সকালে ব্যাঙ্গালোর থেকে তিনি কলকাতা বিমান বন্দরে এসে পৌঁছান। সেখানে কলকাতার বাংলাদেশ উপদূতাবাসের কনসুলার (ভিসা) মনসুর আহমদ বিপ্লব তাকে স্বাগত জানান এবং ভিসা প্রদান করেন। সেখান থেকেই উপমহাদেশের প্রখ্যাত এ শৈল্য চিকিৎসক ঢাকার উদ্দেশে চার্টার্ড বিমানে রওনা হন।

রোববার ভোরে সকালে হঠাৎ শ্বাসপ্রশ্বাসে সমস্যা হলে ওবায়দুল কাদেরকে দ্রুত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রথমে আইসিইউতে ও পরে তাকে সিসিইউতে রাখা হয়েছে।

দেশটির মাউন্ট এলিজাবেথ হসপিটালে তাকে চিকিৎসা দেয়া হবে তাকে।
এদিকে সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতাল থেকে একজন বিশেষজ্ঞ, একজন সাধারণ চিকিৎসক ও দু’জন নার্সসহ চারজনের একটি দল ওই দিন সন্ধ্যায় ঢাকায় এসে এসে পৌঁছান ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসার জন্য।