সুন্দরগঞ্জে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সরকারি আদেশ অমান্য হাট-বাজারে উপচে পড়া ভীড়

এনামুল হক,সুন্দরগঞ্জ(গাইবান্ধা)প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের আক্রমণের হাত থেকে বাঁচতে সরকারিভাবে নানা উদ্যোগ নেয়া হলেও গণজমায়েত থামানো যাচ্ছেনা। গ্রামাঞ্চলের সাধারণ মানুষ বেপরোয়া চলাফেরা করছেন। গণজমায়েত কমাতে সরকারি ও বেসরকারিভাবে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে উপজেলার সর্বত্র মাইকিং,লিফলেট বিতরণসহ নানা মাধ্যমে প্রচার-প্রচারণা অব্যাহত রয়েছে। তবুও কমছেনা গণজমায়েত। লোকজন নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে হাট-বাজারে ভীড় জমাচ্ছে। এছাড়া গ্রামাঞ্চলের বিভিন্ন মোড়ে দোকানপাটের সামনে গাদা-গাদী করে বসে থাকছে লোকজন। নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কাঁচা বাজার ও ওষুধের দোকানের পাশাপাশি অন্যান্য দোকানপাটও খুলছে।

রবিবার(৫ এপ্রিল)সকাল ৮ টায় উপজেলার কাঠগড়াহাটে সরেজমিনে দেখা গেছে,অসংখ্য লোকের উপস্থিতি ও ভীড়। তারা সামাজিক দুরত্ব বজায় না রেখে ইচ্ছেমত গাদা-গাদী করে বেপরোয়া চলাফেরা করছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,ছাইতানতলা বাজার,বেলকা হাট,মজুমদার হাট,ছিলামনির বাজার,বরুয়ার হাট,কছিম বাজার,শখের বাজার ও চৈতন্য বাজারের অবস্থাও একই। তবে গ্রামাঞ্চলের অনেক সচেতন লোক অসচেতন লোকের বেপরোয়া চলাফেরা করার কারণে কিছুটা আতংকে রয়েছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার কাজী লুতফুল হাসান জানান,আজই(৫ এপ্রিল) আমরা সব ইউনিয়নের চেয়ারম্যানদের সাথে মিটিং করলাম। এখন থেকে প্রতি ইউনিয়নে নির্ধারিত পুলিশ থাকবে। চেয়ারম্যান,মেম্বর,পুলিশসহ আমরা সমন্বিতভাবে কাজ করবো। এতে সহজেই সমস্যার সমাধান হবে।