স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে ঠাকুরগাঁওয়ে কথিত এক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা

রেজাউল ইসলাম মাসুদ, ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি: স্কুলছাত্রীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় আসাদুল্লাহ (২২) নামে কথিত এক বখাটে সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

এ ঘটনায় বালিয়াডাঙ্গী থানা তদন্ত করে নারী শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা রুজু করে।

স্কুল ছাত্রীর পিতা গত বৃহস্পতিবার (১৪ই অক্টোবর) রাতে ঠাকুরগাঁও বালিয়াডাঙ্গী থানায় এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দেয়। পরে অভিযোগ তদন্ত করে মামলা রুজু করা হয়। যার মামলা নং-০৪, তাং-১৪/১০/২১।

বখাটে আসাদুল্লাহ (২২) বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার দুওসুও ইউনিয়নের মেম্বারপাড়া এলাকার সাবেক ইউপি সদস্য মৃত এহ্সান আলীর ছেলে।

ছাত্রীকে উত্যক্ত করার কারণে এর আগেও আসাদুল্লাহকে কয়েকবার সতর্ক করা হয়েছে। আসাদুল্লাহ নিজেকে স্থানীয় সাংবাদিক হিসেবে সকলকে পরিচয় দেয় ও এই পরিচয়ের আড়ালে অপকর্ম করে বেড়ায় এমন অভিযোগ এলাকাবাসীর।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ১২ই অক্টোবর মঙ্গলবার স্কুল ছাত্রী সকালে বাসা হতে আইডিয়াল প্রি-ক্যাডেট স্কুলে যাওয়ার জন্য রাওনা দেয়। পথিমধ্যে আসাদুল্লাহ স্কুল ছাত্রীর সাথে কথা বলার জন্য রাস্তা আটকায়। এসময় স্কুল ছাত্রী থামতে না চাইলে আসাদুল্লাহ তার ব্যাগ ও হাঁত ধরে টানাটানি করে ও শারিরিক যৌন হয়রানী করে। পরে কোনভাবে স্কুল ছাত্রী পালিয়ে গিয়ে বাসায় তার বাবাকে বিষয়গুলো জানায়।

পরে স্কুল ছাত্রীর পিতা স্কুল কতৃপক্ষ ও এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিদের সাথে কথা বলে আসাদুল্লাহকে আসামী করে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এ বিষয়ে মেয়ের পিতা বলেন, আমার মেয়ের গানের গলা অনেক সুন্দর। সে তার ভবিষৎ সুন্দর করার জন্য পড়ালেখা করতেছে। সেখানে বখাটে কথিত সাংবাদিক পরিচয়ধারী আসাদুল্লাহ আমার মেয়ের ভবিষৎ নষ্ট করার জন্য এসব করতেছে। এর আগেও আসাদুল্লাহ কে সতর্ক করা হয়েছে।

কিন্তু সে নাকি সাংবাদিক, তার কেও কিছু করতে পারবে না এমন ধমক দেখায়।

বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি হাবিবুল হক প্রধান বলেন, থানায় স্কুল ছাত্রীর বাবা বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। আসামীকে ধরার চেষ্টা চলতেছে। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।