হরতাল সমর্থনে মহাসড়ক অবরোধে জাবির বামপন্থী শিক্ষার্থীরা ।

সাঈদ বিন ইসলাম জাবি প্রতিনিধি ঃ গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে বাম গণতান্ত্রিক জোটের ডাকা হরতালের সমর্থনে ঢাকা-আরিচা মহসাড়ক অবরোধ করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বামপন্থী ছাত্র সংগঠনগুলোর নেতাকর্মীরা। সকালে তারা মহাসড়ক অবরোধ করে হরতালের পক্ষে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকে।

রোববার ভোর ৬টা থেকে প্রগতিশীল ছাত্র জোটের নেতা কর্মীরা দুই দফায় মহাসড়ক অবরোধ করে হরতাল কর্মসূচি পালন করছে। প্রথম দফায় ৬টা থেকে ৮টা পর্যন্ত অবরোধ কর্মসূচী শেষে ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়কে মিছিল করা হয়। পরবর্তীতে পৌনে ৯টা থেকে সাড়ে ১০টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা মহাসড়কে অবস্থান করে।

এর ফলে মহাসড়কে অবরোধের ফলে সমগ্র ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে যানবাহন চলাচল সাময়িকভাবে বন্ধ হয়ে যায়। দুই দিকে দীর্ঘ জানজটে ভোগান্তির শিকার হন কয়েক হাজার যাত্রী। ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করায় আটকা পড়েছে রাজধানীমুখী ২১ জেলার যানবাহন। এই এলাকায় সৃষ্টি হয়েছে দীর্ঘ যানজট। এ সময় পুলিশ বাহিনীকেও সতর্ক অবস্থান নিতে দেখা গেছে।পরবর্তীতে সকাল সাড়ে দশটায় ঘটনাস্থলে পুলিশ ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন উপস্থিত হয়ে অনুরোধ করলে অবরোধকারীরা মহাসড়ক ছেড়ে দেন।

এসময় সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট জাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ দিদার বলেন, ‘এ হরতাল সাধারণ জনগণের মুক্তির দাবিতে হরতাল। সরকার অযৌক্তিকভাবে গ্যাসের দাম বাড়িয়ে দিয়ে জনগণের ব্যয় বাড়িয়ে দিয়েছে। অবিলম্বে গ্যাসের দাম কমাতে হবে।’ হরতালে প্রগতিশীল ছাত্রজোটের ব্যানারে ছাত্র ইউনিয়ন জাবি সংসদের সভাপতি নজির আমিন চৌধুরী জয়, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট জাবি শাখার সভাপতি সুস্মতা মরিয়ম, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ দিদার, সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট মার্কবাদি জাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক মাহাথির মোহাম্মদ সহ প্রায় অর্ধ শতাধিক নেতাকর্মীকে মহাসড়কে অবস্থান করতে দেখা যায়।

উল্লেখ্য দেশব্যাপী অর্ধদিবস হরতাল পালন করছে বাম গণতান্ত্রিক জোট। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অবস্থান নিয়ে মিছিল করছে জোটের নেতাকর্মীরা।

পল্টনের মিছিল থেকে দাবি করা হয়, হরতাল পালনের লক্ষ্যে খুলনাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় আয়োজিত মিছিলে পুলিশ হামলা চালিয়েছে ও গ্রেফতার করেছে। পল্টন থেকে মিছিলটি বাহাদুর শাহ পার্কের দিকে যেতে দেখা গেছে। অন্যদিকে শাহবাগ মোড়ে সড়ক বন্ধ করে দিয়েছে প্রগতিশীল ছাত্র জোট। এতে চারপাশে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

সকালে রাজধানীর শাহবাগ, পল্টন, প্রেসক্লাব, মিরপুর, ফার্মগেট, কারওয়ান বাজার এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, ঢিলেঢালাভাবে হরতাল চললেও কোথাও কোথাও হরতালের পক্ষে মিছিল ও নেতাকর্মীদের অবস্থান।

পল্টনের বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে বাম গণতান্ত্রিক জোটের সাবেক সমন্বয়ক সাইফুল হক বলেন, ‘জনগণ স্বতঃস্ফূর্তভাবে হরতাল পালন করছে। পুলিশ দিয়ে হামলা করে হরতাল ঠেকানো যাবে না।’