দাতা ও প্রতিষ্ঠাতা সভাপতির সংবাদ সম্মেলন তালতলীতে মাদরাসা ধ্বংসের পায়তারা

মৃধা শাহীন শাইরাজ ,তালতলী প্রতিনিধি:বরগুনার তালতলীতে আমখোলা স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা স্থানান্তরিত করে ধ্বংসের পায়তারা চালানো হচ্ছে। সোমবার তালতলী প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে ঐ মাদরাসার দাতা ও প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মো. জালাল উদ্দিন কতিপয় এলাকাবাসীর বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করেন।

লিখিত বক্তব্যে জালাল উদ্দিন বলেন, উপজেলার সোনাকাটা ইউনিয়নের আমখোলা গ্রামে ১৯৭৯ সালে ৪২নং বড় নিশানবাড়িয়া মৌজার ২০৫নং খতিয়ানের ৫৪৬৫ নং দাগের জমি থেকে অর্পননামা রেজিট্রিকৃত দলিল দিয়ে আমখোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি স্থাপন করেন। স্কুলে দেয়া দলিলের চৌহদ্দিমতে ঐ দাগেই বর্তমানে বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে সাড়ে ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে ৩ তলা বিশিষ্ট ভবন রয়েছে। অন্যদিকে ১৯৮৫ সালে একই খতিয়ান থেকে ৪০ শতাংশ জমি অর্পননামা রেজিট্রিকৃত দলিলমুলে ৫৪৫৬ নং দাগে আমখোলা স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসা স্থাপন করেন। স্কুল ও মাদরাসাটি প্রায় একই ক্যাম্পাসে। মাদরাসাটি ধ্বংস করার লক্ষে একই ক্যাম্পাস থেকে সরিয়ে পশ্চিম দিকে স্থানান্তরিত করার জন্য স্থানীয় কিছু সংখ্যক দুর্নীতি পরায়ন লোকেরা পায়তারা চালাচ্ছে। সংবাদ সম্মেলনে তিনি আমখোলা স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদরাসাটি আইনানুগ পন্থায় নিজস্ব গতিতে পরিচালিত হওয়ার জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। তারিখ ০৫-১০-২০২০ইং

ছবি ১ঢ়রপ সংযুক্ত, ছবির ক্যারাপসনঃ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, ঐ মাদরাসার দাতা ও প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মো. জালাল উদ্দিন।